ঢাকা ০৬:৫২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মাধবদীতে অবৈধ গ্যাস বিস্ফোরণে একই পরিবারের ৬ জন দগ্ধ

আ: ছাত্তার মিয়া নরসিংদী:

গত: ৮ জানুয়ারী সোমবার ভোররাত ৩টার দিকে সদর উপজেলার নূরালাপুর ইউনিয়নের গদাইরচর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিস্ফোরণের পর এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে তাঁদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়। গুরুত্বর আহতরা হলেন টেক্সটাইল শ্রমিক শামীম মিয়া (৪০), তাঁর স্ত্রী আকলিমা বেগম (৩৫), তাঁদের কন্যা সানজিদা (১৮) ও রিয়া মনি (৯), শামীমের বড় ভাই গাফ্ফার মিয়া (৪০) ও ছোট ভাই রশিদ মিয়া (৩২)।
আহতদের পরিবারের সদস্য ও এলাকাবাসী জানান, দীর্ঘদিন ধরেই আলগী এলাকার মানিক মিয়া নামক এক ব্যক্তি ওই গ্রামের কূচক্রীমহলের নেতৃত্বে এলাকায় বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে অবৈধভাবে অর্থের বিনিময়ে গ্যাস সংযোগ দিয়ে আসছেন। সম্প্রতি শামীম মিয়ার বাড়ির পাশের ড্রেন দিয়ে বিলকিস নামক এক নারীর বাড়িতে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দেন মানিক মিয়া। ধারণা করা হচ্ছে শামীম মিয়ার বাড়ির শৌচাগারের পাইপ দিয়ে অবৈধ সংযোগের লিকেজের মধ্যে বসত ঘরে ঢুকে পরে গ্যাস। ভোরে রান্না বসানোর জন্য চুলায় আগুন দিলে মুহুর্তেই বিকট বিস্ফোরণে ঘরের ছাদসহ কম্পিত হয়ে আগুন লেগে যায়। এসময় একই পরিবারের তিন ভাই এবং তাঁদের স্ত্রী, কন্যাসহ ৬ জন আহত হন। মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুজ্জামান বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। প্রাথমিক তদন্তে মনে হয়েছে, জ্বালানি গ্যাসের বিস্ফোরণ থেকেই অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঠাকুরগাঁওয়ে ৬শ পিস ইয়াবাসহ ২ মাদক কারবারি গ্রেফতার

মাধবদীতে অবৈধ গ্যাস বিস্ফোরণে একই পরিবারের ৬ জন দগ্ধ

আপডেট : ১১:৪০:৪৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জানুয়ারী ২০২৪

আ: ছাত্তার মিয়া নরসিংদী:

গত: ৮ জানুয়ারী সোমবার ভোররাত ৩টার দিকে সদর উপজেলার নূরালাপুর ইউনিয়নের গদাইরচর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিস্ফোরণের পর এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে তাঁদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়। গুরুত্বর আহতরা হলেন টেক্সটাইল শ্রমিক শামীম মিয়া (৪০), তাঁর স্ত্রী আকলিমা বেগম (৩৫), তাঁদের কন্যা সানজিদা (১৮) ও রিয়া মনি (৯), শামীমের বড় ভাই গাফ্ফার মিয়া (৪০) ও ছোট ভাই রশিদ মিয়া (৩২)।
আহতদের পরিবারের সদস্য ও এলাকাবাসী জানান, দীর্ঘদিন ধরেই আলগী এলাকার মানিক মিয়া নামক এক ব্যক্তি ওই গ্রামের কূচক্রীমহলের নেতৃত্বে এলাকায় বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে অবৈধভাবে অর্থের বিনিময়ে গ্যাস সংযোগ দিয়ে আসছেন। সম্প্রতি শামীম মিয়ার বাড়ির পাশের ড্রেন দিয়ে বিলকিস নামক এক নারীর বাড়িতে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দেন মানিক মিয়া। ধারণা করা হচ্ছে শামীম মিয়ার বাড়ির শৌচাগারের পাইপ দিয়ে অবৈধ সংযোগের লিকেজের মধ্যে বসত ঘরে ঢুকে পরে গ্যাস। ভোরে রান্না বসানোর জন্য চুলায় আগুন দিলে মুহুর্তেই বিকট বিস্ফোরণে ঘরের ছাদসহ কম্পিত হয়ে আগুন লেগে যায়। এসময় একই পরিবারের তিন ভাই এবং তাঁদের স্ত্রী, কন্যাসহ ৬ জন আহত হন। মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুজ্জামান বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। প্রাথমিক তদন্তে মনে হয়েছে, জ্বালানি গ্যাসের বিস্ফোরণ থেকেই অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’