ঢাকা ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁও শহরের স্কুলের সামনে অবৈধ দোকান ও ভারি গাড়ী ষ্ট্যান্ড

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের স্কুলের সামনে অবৈধ দোকান ও ভারি গাড়ি স্ট্যান্ড গড়ে উঠেছে।যে কোন সময়ে আবার ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। প্রতি বছর পিটিআই ও সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে ঘটছে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পিটিআই, ঠাকুরগাঁও সরকারি বালক ও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান গেটের আশেপাশে ব্যাঙ্গের ছাতার মতো গজিয়ে উঠেছে এই সব অবৈধ দোকান ও ভারি গাড়ি স্ট্যান্ড। এইসব অবৈধ দোকানে ক্রেতাদের ভিড় সবসময়ই লেগে থাকে তার সাথে মটর সাইকেল, ইজিবাইক ও নানা ধরনের যানবাহনের।

এতে সবসময় আতঙ্ক গ্ৰস্থ থাকছে স্কুলগামী ছাত্র-ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকরা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অভিভাবক সাংবাদিককে জানান, কিছু দিন আগে ক্লাস শেষে সন্তানকে নিয়ে স্কুলের প্রধান ফটক পেরিয়ে যেতেই অজ্ঞাত বাইকের সাথে হোঁচট খেয়ে রাস্তায় পড়ে যায়। ভাগ্যিস ওই সময় ভারী যানবাহন রাস্তায় না থাকায় জানে রক্ষা পায়। অবৈধ এই সব দোকানে ক্রেতাদের ভিড়ের সাথে সাথে গাড়ি পার্কিংয়ের কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করেন অভিভাবকরা।

তাছাড়া ট্র্যাফিক পুলিশের ব্যবস্থা না থাকা, প্রশাসনিক ভাবে দেখার ও শুনার কেউই নেই, সবাই একে অপরের উপর তাকিয়ে রয়েছে কে করবে কাজটা। পৌর সভা, সড়ক জনপদ বিভাগ ও জেলা প্রশাসনের সামনে দাপটের সাথে এই সব অবৈধ ভাবে চলছে ব্যাবসা। দুর্ঘটনাও ঘটছে। পিটিআই ও সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের আশেপাশে প্রতিবছরই বীভৎস দুর্ঘটনার ঘটার বিবরণ রয়েছে। ঠাকুরগাঁও বাসী এই অবৈধ দোকান উচ্ছেদের মাধ্যমে রাস্তা পরিষ্কারের আহ্বান জানান

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঠাকুরগাঁওয়ে ভোটের মাঠের বীরযোদ্ধা অরুণাংশু দত্ত টিটো

ঠাকুরগাঁও শহরের স্কুলের সামনে অবৈধ দোকান ও ভারি গাড়ী ষ্ট্যান্ড

আপডেট : ০৮:১২:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের স্কুলের সামনে অবৈধ দোকান ও ভারি গাড়ি স্ট্যান্ড গড়ে উঠেছে।যে কোন সময়ে আবার ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। প্রতি বছর পিটিআই ও সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে ঘটছে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পিটিআই, ঠাকুরগাঁও সরকারি বালক ও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান গেটের আশেপাশে ব্যাঙ্গের ছাতার মতো গজিয়ে উঠেছে এই সব অবৈধ দোকান ও ভারি গাড়ি স্ট্যান্ড। এইসব অবৈধ দোকানে ক্রেতাদের ভিড় সবসময়ই লেগে থাকে তার সাথে মটর সাইকেল, ইজিবাইক ও নানা ধরনের যানবাহনের।

এতে সবসময় আতঙ্ক গ্ৰস্থ থাকছে স্কুলগামী ছাত্র-ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকরা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অভিভাবক সাংবাদিককে জানান, কিছু দিন আগে ক্লাস শেষে সন্তানকে নিয়ে স্কুলের প্রধান ফটক পেরিয়ে যেতেই অজ্ঞাত বাইকের সাথে হোঁচট খেয়ে রাস্তায় পড়ে যায়। ভাগ্যিস ওই সময় ভারী যানবাহন রাস্তায় না থাকায় জানে রক্ষা পায়। অবৈধ এই সব দোকানে ক্রেতাদের ভিড়ের সাথে সাথে গাড়ি পার্কিংয়ের কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করেন অভিভাবকরা।

তাছাড়া ট্র্যাফিক পুলিশের ব্যবস্থা না থাকা, প্রশাসনিক ভাবে দেখার ও শুনার কেউই নেই, সবাই একে অপরের উপর তাকিয়ে রয়েছে কে করবে কাজটা। পৌর সভা, সড়ক জনপদ বিভাগ ও জেলা প্রশাসনের সামনে দাপটের সাথে এই সব অবৈধ ভাবে চলছে ব্যাবসা। দুর্ঘটনাও ঘটছে। পিটিআই ও সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের আশেপাশে প্রতিবছরই বীভৎস দুর্ঘটনার ঘটার বিবরণ রয়েছে। ঠাকুরগাঁও বাসী এই অবৈধ দোকান উচ্ছেদের মাধ্যমে রাস্তা পরিষ্কারের আহ্বান জানান