ঢাকা ০৭:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

লালমনিরহাটে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ছোট ভাইয়ের হাতে বড়ভাই খুন

ঈশাত জামান মুন্না লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় ছোট ভাইয়ের কোদালের কোপে বড়ভাই মিজানুর রহমান (৪৮) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নিহতের বাবা খাইরুল আমিন থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বলে জানা গেছে ।

সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার বসুনিয়াপাড়া এ ঘটনা ঘটে। নিহত মিজানুর রহমান ওই গ্রামের খায়রুল আমিনের বড় ছেলে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানা যায়, সোমবার সকালে বাড়ির পাশে কোদাল নিয়ে পানির ড্রেন বন্ধ করতে যান ছোট ভাই রবিউল ইসলাম। এসময় ওই ড্রেন করা নিয়ে কথা কাটাকাটির সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে ওই কোদাল দিয়েই তার মাথায় আঘাত করলে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে যান বড় ভাই মিজানুর। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে মিজানুরকে প্রথমে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-এ নিয়ে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ২ টায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান বলে জানান ওসি। নিহতের বাবা খায়রুল আমিন বলেন, জমির ড্রেন নিয়ে দুই ভাইয়ের কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে এই ঘটনা ঘটে।
আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহমুদ-উন-নবী বলেন, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

পুকুরে ধরা পড়ল রুপালি ইলিশ

লালমনিরহাটে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ছোট ভাইয়ের হাতে বড়ভাই খুন

আপডেট : ০৬:০৩:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ঈশাত জামান মুন্না লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় ছোট ভাইয়ের কোদালের কোপে বড়ভাই মিজানুর রহমান (৪৮) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নিহতের বাবা খাইরুল আমিন থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বলে জানা গেছে ।

সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার বসুনিয়াপাড়া এ ঘটনা ঘটে। নিহত মিজানুর রহমান ওই গ্রামের খায়রুল আমিনের বড় ছেলে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানা যায়, সোমবার সকালে বাড়ির পাশে কোদাল নিয়ে পানির ড্রেন বন্ধ করতে যান ছোট ভাই রবিউল ইসলাম। এসময় ওই ড্রেন করা নিয়ে কথা কাটাকাটির সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে ওই কোদাল দিয়েই তার মাথায় আঘাত করলে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে যান বড় ভাই মিজানুর। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে মিজানুরকে প্রথমে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-এ নিয়ে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ২ টায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান বলে জানান ওসি। নিহতের বাবা খায়রুল আমিন বলেন, জমির ড্রেন নিয়ে দুই ভাইয়ের কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে এই ঘটনা ঘটে।
আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহমুদ-উন-নবী বলেন, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।