ঢাকা ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নরসিংদীতে রেললাইনের পাশে পড়ে ছিল সুমন নামের এক যুবকের লাশ

হাজী জাহিদ, নরসিংদী পলাশ:

নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় রেললাইনের পাশে পড়ে ছিল এক যুবকের লাশ। আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার জিনারদী স্টেশনসংলগ্ন রেললাইনের পাশ থেকে লাশটি উদ্ধার করে রেলওয়ে পুলিশ। কোনো ট্রেনের ধাক্কায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা পুলিশের।

লাশ উদ্ধার হওয়া যুবকের নাম সুমন সাহা (৩৪)। তিনি উপজেলার জিনারদী ইউনিয়নের বরাব গ্রামের ভালুকাপাড়া এলাকার মৃত নেপাল চন্দ্র সাহার ছেলে। স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে বরাব এলাকার সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাড়িতে বসবাস করতেন সুমন। তিনি নরসিংদী শহরে একটি পুরি-শিঙাড়ার দোকানে কাজ করতেন।

পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, আজ ভোরে কাজের উদ্দেশ্যে নরসিংদী শহরে যেতে বাসা থেকে বের হন সুমন। সকাল পৌনে আটটার দিকে জিনারদী রেলস্টেশনের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কয়েকজন আনসার সদস্য রেললাইনের পাশে তাঁর লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নাজিবুর রহমান ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করেন। পরে পরিবারের সদস্যরা সেখানে গিয়ে তাঁর লাশ শনাক্ত করেন।

পুলিশ কর্মকর্তা নাজিবুর রহমান বলেন, ভোর সাড়ে ৫টা থেকে সকাল সাড়ে ৭টার মধ্যে অজ্ঞাত কোনো ট্রেনের ধাক্কায় সুমন সাহার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাঁর মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ থেঁতলে গেছে। তাঁর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার নুর উস সাদিক চৌধুরী 

নরসিংদীতে রেললাইনের পাশে পড়ে ছিল সুমন নামের এক যুবকের লাশ

আপডেট : ০৩:০৯:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

হাজী জাহিদ, নরসিংদী পলাশ:

নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় রেললাইনের পাশে পড়ে ছিল এক যুবকের লাশ। আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার জিনারদী স্টেশনসংলগ্ন রেললাইনের পাশ থেকে লাশটি উদ্ধার করে রেলওয়ে পুলিশ। কোনো ট্রেনের ধাক্কায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা পুলিশের।

লাশ উদ্ধার হওয়া যুবকের নাম সুমন সাহা (৩৪)। তিনি উপজেলার জিনারদী ইউনিয়নের বরাব গ্রামের ভালুকাপাড়া এলাকার মৃত নেপাল চন্দ্র সাহার ছেলে। স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে বরাব এলাকার সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাড়িতে বসবাস করতেন সুমন। তিনি নরসিংদী শহরে একটি পুরি-শিঙাড়ার দোকানে কাজ করতেন।

পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, আজ ভোরে কাজের উদ্দেশ্যে নরসিংদী শহরে যেতে বাসা থেকে বের হন সুমন। সকাল পৌনে আটটার দিকে জিনারদী রেলস্টেশনের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কয়েকজন আনসার সদস্য রেললাইনের পাশে তাঁর লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নাজিবুর রহমান ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করেন। পরে পরিবারের সদস্যরা সেখানে গিয়ে তাঁর লাশ শনাক্ত করেন।

পুলিশ কর্মকর্তা নাজিবুর রহমান বলেন, ভোর সাড়ে ৫টা থেকে সকাল সাড়ে ৭টার মধ্যে অজ্ঞাত কোনো ট্রেনের ধাক্কায় সুমন সাহার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাঁর মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ থেঁতলে গেছে। তাঁর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে।