ঢাকা ০৪:৫১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নরসিংদীতে অটোরিকশা চালক হত্যার আসামিদের গ্রেফতারের পর পুলিশ সুপারের সংবাদ সম্মেলন

মুহাম্মদ মুছা মিয়া:

নরসিংদীর মাধবদীতে অজ্ঞাতনামা আসামি কর্তৃক চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই ঘটনার রহস্য উদঘাটন, মালামাল উদ্ধার ও আসামি গ্রেফতার সংক্রান্ত সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টায় নরসিংদী পুলিশ সুপার কনফারেন্স হল রুমে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়। এসময় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গত ১৫ জুলাই রাত সাড়ে আটটায় মাধবদী থানার ভাটপাড়া এলাকার মোঃ নুরুল ইসলাম অটোরিকশা নিয়ে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। পরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর ১৬ জুলাই ভোর ছয়টার দিকে মাধবদী থানাধীন দামের ভাওলা এলাকার একটি বড়ই গাছের সাথে গামছা দিয়ে বাঁধা অবস্থায় তার মৃতদেহ পাওয়া যায়। এঘটনায় ১৯ জুন নিহতের স্ত্রী শিউলি বেগমের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে মাধবদী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।
এরই পরিপ্রেক্ষিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নরসিংদী সদর সার্কেল ও মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার তত্ত্বাবধানে আসামিদের সনাক্তকরণ ও ছিনতাইকৃত অটোরিকশা উদ্ধারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হয়।
পরে ৯ জুলাই হত্যাকাণ্ডে জড়িত আসামি বাচ্চু মিয়া, তার সহযোগী হৃদয়, সোহেলকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায় মাধবদী থানা পুলিশ সেইসাথে ছিনতাইকৃত অটোরিকশার চাকা, ব্যাটারী ও মিটার উদ্ধার করে তারা।
গত ১০ জুলাই আসামি সোহেল, হৃদয় ও নবী হোসেন ফৌজদারি কার্যবিধি ১৬৪ ধারায় নিজেদের দোষ স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানান তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) অনির্বাণ চৌধুরী, নরসিংদী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) কেএম শহিদুল ইসলাম সোহাগ, মাধবদী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ কামরুজ্জামানপ্রমূখপ্রমূখ।

মুহাম্মদ মুছা মিয়া, মাধবদী, নরসিংদী।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঠাকুরগাঁওয়ে ৫ লাখ টাকা কুড়িয়ে পেয়ে মাইকিং করে ভাইরাল হওয়া সৌরভ গ্রেফতার

নরসিংদীতে অটোরিকশা চালক হত্যার আসামিদের গ্রেফতারের পর পুলিশ সুপারের সংবাদ সম্মেলন

আপডেট : ১১:৩৪:২১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪

মুহাম্মদ মুছা মিয়া:

নরসিংদীর মাধবদীতে অজ্ঞাতনামা আসামি কর্তৃক চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই ঘটনার রহস্য উদঘাটন, মালামাল উদ্ধার ও আসামি গ্রেফতার সংক্রান্ত সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টায় নরসিংদী পুলিশ সুপার কনফারেন্স হল রুমে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়। এসময় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গত ১৫ জুলাই রাত সাড়ে আটটায় মাধবদী থানার ভাটপাড়া এলাকার মোঃ নুরুল ইসলাম অটোরিকশা নিয়ে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। পরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর ১৬ জুলাই ভোর ছয়টার দিকে মাধবদী থানাধীন দামের ভাওলা এলাকার একটি বড়ই গাছের সাথে গামছা দিয়ে বাঁধা অবস্থায় তার মৃতদেহ পাওয়া যায়। এঘটনায় ১৯ জুন নিহতের স্ত্রী শিউলি বেগমের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে মাধবদী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।
এরই পরিপ্রেক্ষিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নরসিংদী সদর সার্কেল ও মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার তত্ত্বাবধানে আসামিদের সনাক্তকরণ ও ছিনতাইকৃত অটোরিকশা উদ্ধারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হয়।
পরে ৯ জুলাই হত্যাকাণ্ডে জড়িত আসামি বাচ্চু মিয়া, তার সহযোগী হৃদয়, সোহেলকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায় মাধবদী থানা পুলিশ সেইসাথে ছিনতাইকৃত অটোরিকশার চাকা, ব্যাটারী ও মিটার উদ্ধার করে তারা।
গত ১০ জুলাই আসামি সোহেল, হৃদয় ও নবী হোসেন ফৌজদারি কার্যবিধি ১৬৪ ধারায় নিজেদের দোষ স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানান তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) অনির্বাণ চৌধুরী, নরসিংদী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) কেএম শহিদুল ইসলাম সোহাগ, মাধবদী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ কামরুজ্জামানপ্রমূখপ্রমূখ।

মুহাম্মদ মুছা মিয়া, মাধবদী, নরসিংদী।