ঢাকা ০৫:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাণীশংকৈলে ক্ষমতার দাপটে লিজ নেওয়া পুকুর থেকে মাছ তোলার অভিযোগ স্থানীয় প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে 

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় গত ৬ জুলাই

লিজ নেওয়া পুকুর থেকে অনুমতি ছাড়াই ৪ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের  মাছ তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী দুলাল মাস্টারের বিরুদ্ধে।

সর জমিনে গিয়ে জানা যায়, ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে ১৫ হতে ২০  লোক নিয়ে মনজুরুল আলমের লিজ নেওয়া পুকুর থেকে প্রায় ২০ মনের মত মাছ উত্তোলন করেছেন।

লিজ নেওয়া ব্যক্তি পুকুর মালিক মনজুরুল আলম অভিযোগ করে বলেন,দুলাল মাস্টার রাণীশংকৈল উপজেলার পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আহাম্মদ হোসেন বিপ্লবের আপন ভাই।ভাই উপজেলা চেয়ারম্যান হওয়ায় ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে আমার পুকুর থেকে মাছ উত্তোলন করেছে । আমি দীর্ঘদিন ধরে কুকুর গুলোতে মাছ চাষ করে আসছি, আর এই দুলাল মাষ্টার  উপজেলা চেয়ারম্যানের ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে আমার  লিজ নেওয়া পুকুর থেকে জোরপূর্বক আমার মাছগুলো উত্তোলন করেছে।

আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাচ্ছি,ক্ষমতা আছে বলেই যে কারো পুকুর থেকে মাছ উত্তোলন করবে এটা কি করে সম্ভব। এখনো কি আমরা আদি যুগে বসবাস করছি। যে অন্যায় ভাবে কাজ করবে। আমরা বিচার পাবো না।

আমি পুকুর লিজ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মাছ চাষ করে আসছি তাই আমার দাবী সুষ্ঠু বিচারের মাধ্যমে একটা সমাধান হওয়া উচিত।

এ বিষয়ে দুলাল মাষ্টারের মুঠো ফোনে একাধিক বার যোগাযোগ করা হলে,তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঠাকুরগাঁওয়ে ৫ লাখ টাকা কুড়িয়ে পেয়ে মাইকিং করে ভাইরাল হওয়া সৌরভ গ্রেফতার

রাণীশংকৈলে ক্ষমতার দাপটে লিজ নেওয়া পুকুর থেকে মাছ তোলার অভিযোগ স্থানীয় প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে 

আপডেট : ০৫:৫২:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় গত ৬ জুলাই

লিজ নেওয়া পুকুর থেকে অনুমতি ছাড়াই ৪ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের  মাছ তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী দুলাল মাস্টারের বিরুদ্ধে।

সর জমিনে গিয়ে জানা যায়, ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে ১৫ হতে ২০  লোক নিয়ে মনজুরুল আলমের লিজ নেওয়া পুকুর থেকে প্রায় ২০ মনের মত মাছ উত্তোলন করেছেন।

লিজ নেওয়া ব্যক্তি পুকুর মালিক মনজুরুল আলম অভিযোগ করে বলেন,দুলাল মাস্টার রাণীশংকৈল উপজেলার পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আহাম্মদ হোসেন বিপ্লবের আপন ভাই।ভাই উপজেলা চেয়ারম্যান হওয়ায় ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে আমার পুকুর থেকে মাছ উত্তোলন করেছে । আমি দীর্ঘদিন ধরে কুকুর গুলোতে মাছ চাষ করে আসছি, আর এই দুলাল মাষ্টার  উপজেলা চেয়ারম্যানের ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে আমার  লিজ নেওয়া পুকুর থেকে জোরপূর্বক আমার মাছগুলো উত্তোলন করেছে।

আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাচ্ছি,ক্ষমতা আছে বলেই যে কারো পুকুর থেকে মাছ উত্তোলন করবে এটা কি করে সম্ভব। এখনো কি আমরা আদি যুগে বসবাস করছি। যে অন্যায় ভাবে কাজ করবে। আমরা বিচার পাবো না।

আমি পুকুর লিজ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মাছ চাষ করে আসছি তাই আমার দাবী সুষ্ঠু বিচারের মাধ্যমে একটা সমাধান হওয়া উচিত।

এ বিষয়ে দুলাল মাষ্টারের মুঠো ফোনে একাধিক বার যোগাযোগ করা হলে,তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।