ঢাকা ০৬:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে আদালত বর্জন করলেন আইনজীবীরা

মাহমুদ আহসান হাবিব, ঠাকুরগাঁও : গণতন্ত্র ও আইনের শাসন পুনঃ প্রতিষ্ঠা, বিচারের নামে অবিচার বন্ধের দাবিতে ১লা জানুয়ারী থেকে আগামী ৭ জানুয়ারী পর্যন্ত সকল আদালত বর্জন করেছেন ঠাকুরগাঁওয়ের বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম ও ঠাকুরগাঁও জজ কোর্টের আইনজীবীবৃন্দ এর আয়োজনে সোমবার সকালে ঠাকুরগাঁও জজ কোর্ট চত্তরে ব্যানার হাতে অবস্থান নিয়ে আদালত বর্জন করেন আইনজীবীরা ।

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক অ্যাড. এনতাজুল হক এর সভাপতিত্বে এ সময় বক্তব্য দেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাড. আব্দুল হালিম ও সাধারন সম্পাদক অ্যাড. জয়নাল আবেদিন।

বক্তারা বলেন, আগামী ৭ জানুয়ারি সরকার আরেকটি নীলনকশার পাতানো ডামি নির্বাচনের পাঁয়তারা করছে। কথিত নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক দেখানোর জন্য সরকারি দলের স্বতন্ত্র প্রার্থী, বিদ্রোহী , অনুগত প্রার্থীসহ হরেক রকমের প্রার্থী দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছে। কারা ডামি হিসেবে দাঁড়িয়ে থাকবে তাও ঠিক করে দেয়া হচ্ছে। শেখ হাসিনার পদত্যাগ, ‘ডামি নির্বাচন’ বর্জন, বিচার বিভাগের স্বাধীনতা পুন:প্রতিষ্ঠা এবং জনগণের মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দেবার লক্ষ্যেই আমাদের এ কর্মসূচী।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঠাকুরগাঁওয়ে ৫ লাখ টাকা কুড়িয়ে পেয়ে মাইকিং করে ভাইরাল হওয়া সৌরভ গ্রেফতার

ঠাকুরগাঁওয়ে আদালত বর্জন করলেন আইনজীবীরা

আপডেট : ০৭:২৬:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জানুয়ারী ২০২৪

মাহমুদ আহসান হাবিব, ঠাকুরগাঁও : গণতন্ত্র ও আইনের শাসন পুনঃ প্রতিষ্ঠা, বিচারের নামে অবিচার বন্ধের দাবিতে ১লা জানুয়ারী থেকে আগামী ৭ জানুয়ারী পর্যন্ত সকল আদালত বর্জন করেছেন ঠাকুরগাঁওয়ের বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম ও ঠাকুরগাঁও জজ কোর্টের আইনজীবীবৃন্দ এর আয়োজনে সোমবার সকালে ঠাকুরগাঁও জজ কোর্ট চত্তরে ব্যানার হাতে অবস্থান নিয়ে আদালত বর্জন করেন আইনজীবীরা ।

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক অ্যাড. এনতাজুল হক এর সভাপতিত্বে এ সময় বক্তব্য দেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাড. আব্দুল হালিম ও সাধারন সম্পাদক অ্যাড. জয়নাল আবেদিন।

বক্তারা বলেন, আগামী ৭ জানুয়ারি সরকার আরেকটি নীলনকশার পাতানো ডামি নির্বাচনের পাঁয়তারা করছে। কথিত নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক দেখানোর জন্য সরকারি দলের স্বতন্ত্র প্রার্থী, বিদ্রোহী , অনুগত প্রার্থীসহ হরেক রকমের প্রার্থী দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছে। কারা ডামি হিসেবে দাঁড়িয়ে থাকবে তাও ঠিক করে দেয়া হচ্ছে। শেখ হাসিনার পদত্যাগ, ‘ডামি নির্বাচন’ বর্জন, বিচার বিভাগের স্বাধীনতা পুন:প্রতিষ্ঠা এবং জনগণের মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দেবার লক্ষ্যেই আমাদের এ কর্মসূচী।