ঢাকা ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তীব্র গরমে ধান কাটতে গিয়ে প্রাণ গেল শ্রমিকের

নিজস্ব প্রতিবেদক।

তীব্র গরমে ধান কাটতে গিয়ে প্রাণ গেল শ্রমিকের
তীব্র তাপদাহের মধ্যেই ফসলের মাঠে ধান কাটা শুরু হয়েছে। আর এই ধান কাটতে গিয়ে মানিক মিয়া (৩৫) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার (২৯ এপ্রিল) বেলা ২টার দিকে কালীগঞ্জের জামালপুরে এই ঘটনা ঘটে। নিহত মানিক মিয়ার বাড়ি লালমনিরহাটে। সে জামালপুরে থেকে ধান কাটা শ্রমিকের কাজ করতেন।

পলাশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার পলাশ দাস জানান, আজ ৩ টার দিকে কয়েকজন শ্রমিক মৃত অবস্থায় মানিক মিয়াকে আমাদের হাসপাতালে নিয়ে আসেন। আমরা তাদের সাথে কথা বলে জানতে পারি তার বাড়ি লালমনিরহাটে। তিনি আজ জামালপুরে ধান কাটার কাজ করেন। তাদের ধারণা তীব্র গরমে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। এ ঘটনার বিষয়ে পলাশ থানাকে খবর দেওয়া হয়েছে।

পলাশ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আরিফ জানান, এই ঘটনা কালীগঞ্জে ঘটেছে। আমাদের এখানে তার মরদেহ নিয়ে আসা হয়। মরদেহ নিয়ে যাওয়ার জন্য কালীগঞ্জ থানাকে জানানো হয়েছে।

পলাশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সহকারী চিকিৎসক হারুন অর রশীদ জানান, রোগীকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। তাই ময়নাতদন্ত ছাড়া মৃত্যুর সঠিক কারণ বলা যাবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঠাকুরগাঁওয়ে উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে জেলা আওয়ামীঃ রাজনীতিতে বিভক্তি হওয়ার আশঙ্কা

তীব্র গরমে ধান কাটতে গিয়ে প্রাণ গেল শ্রমিকের

আপডেট : ০৯:১১:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক।

তীব্র গরমে ধান কাটতে গিয়ে প্রাণ গেল শ্রমিকের
তীব্র তাপদাহের মধ্যেই ফসলের মাঠে ধান কাটা শুরু হয়েছে। আর এই ধান কাটতে গিয়ে মানিক মিয়া (৩৫) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার (২৯ এপ্রিল) বেলা ২টার দিকে কালীগঞ্জের জামালপুরে এই ঘটনা ঘটে। নিহত মানিক মিয়ার বাড়ি লালমনিরহাটে। সে জামালপুরে থেকে ধান কাটা শ্রমিকের কাজ করতেন।

পলাশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার পলাশ দাস জানান, আজ ৩ টার দিকে কয়েকজন শ্রমিক মৃত অবস্থায় মানিক মিয়াকে আমাদের হাসপাতালে নিয়ে আসেন। আমরা তাদের সাথে কথা বলে জানতে পারি তার বাড়ি লালমনিরহাটে। তিনি আজ জামালপুরে ধান কাটার কাজ করেন। তাদের ধারণা তীব্র গরমে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। এ ঘটনার বিষয়ে পলাশ থানাকে খবর দেওয়া হয়েছে।

পলাশ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আরিফ জানান, এই ঘটনা কালীগঞ্জে ঘটেছে। আমাদের এখানে তার মরদেহ নিয়ে আসা হয়। মরদেহ নিয়ে যাওয়ার জন্য কালীগঞ্জ থানাকে জানানো হয়েছে।

পলাশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সহকারী চিকিৎসক হারুন অর রশীদ জানান, রোগীকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। তাই ময়নাতদন্ত ছাড়া মৃত্যুর সঠিক কারণ বলা যাবে।