ঢাকা ০৬:৪৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাংবাদিক হামলার মামলায় সুদেব মাষ্টার জেল হাজতে প্রেরণ এপ্রিল ২৪, ২০২৪

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :

ঠাকুরগাও প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও রুহিয়া কাকলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বদরুল ইসলাম বিপ্লবের উপর সন্ত্রাসী হামলার মামলায় আদালত প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।বুধবার প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মন সহ ৪ আসামী সিনিয়র জুডিশিয়াল আমুলি আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন জানালে উভয় পক্ষের আইনজীবীদের শুনানী শেষে বিচারক রাজিব কুমার চৌ: প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মনের জামিন না মন্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।অপর ৩ আসামী সতীশ চন্দ্র বর্মন,বিপ্লব চন্দ্র বর্মন ও সত্য মোহনকে জামিনে মুক্তির আদেশ দেয়।
জানা গেছে,ঠাকুরগাঁও সদরের রুহিয়া মধুপুর কাকলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মন ওই বিদ্যালয়ে বিভিন্ন পদে লোক নিয়োগের জন্য বেশ কিছু লোকের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়। তিনি তার মনোনীত লোকের চাকুরির নিশ্চয়তা না দেখে নিয়োগ কার্যক্রম বিভিন্ন অজুহাতে পিছানোর চেষ্টা চালায়।
এদিকে গত ৬ ফেব্রুয়ারি নতুন নীতিমালা অনুযায়ী ওই বিদ্যালয়ে সহ: প্রধান শিক্ষক,অফিস সহায়ক ও আয়া পদে লোক নিয়োগের সিদ্ধান্ত হয়।সে অনুযায়ী পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়।এতে প্রধান শিক্ষক তার মনোনীত লোকদের চাকুরি দিতে না পারায় আশংকাংয় পড়ে।প্রধান শিক্ষক চাকুরি প্রত্যাশি সতিশ চন্দ্র বর্মন ,বিপ্লব চন্দ্র বর্মন লক্ষন ও সত্য গোপাল সভাপতি বেকায়দায় ফেলতে পরিকল্পনা আটে। সে অনুযায়ী গত ১২ ফেব্রুয়ারী সকাল ১১ টায় প্রধান শিক্ষক
সভাপতিকে বিদ্যালয়ে ডেকে আনলে অফিস কক্ষে সকলে মিলে সভাপতি সাংবাদিক বিপ্লবকে এলোপাথাড়ি মারপিট করে।এছাড়াও নিয়োগ কার্যক্রম সম্পন্ন করতে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেন আসামীরা।প্রত্যক্ষদর্শীরা তাকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও ২৫০ শয়্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করেন।তিনি সেখানে কয়েকদিন চিকিৎসার পর খানিকটা সুস্থ হয়ে প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মন সহ ৪ জনকে আসামী করে রুহিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ৩০ মার্চ আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।
বুধবার প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মন সহ ৪ আসামী সিনিয়র জুডিশয়াল আমলি আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন জানালে বিচারক রাজিব কুমার চৌধিরী উভয় পক্ষের দীর্ঘ শুনানী শেষে প্রধান আসামী সুদেব চন্দ্র বর্মনের জামিনের আবেদন না মন্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।এবং আপরাপর ৩ আসামীকে জামিনে মুক্তি দান করে।বাদী পক্ষে মামলায় কৌশলী ছিলেন এড. সোহরাব প্রধান,আবু তোরাব মানিক, এড. ইমরান হোসেন চৌ. প্রমুখ।আর আসামী পক্ষে ছিলেন এড. মাসুদ রানা।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঠাকুরগাঁওয়ে উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে জেলা আওয়ামীঃ রাজনীতিতে বিভক্তি হওয়ার আশঙ্কা

সাংবাদিক হামলার মামলায় সুদেব মাষ্টার জেল হাজতে প্রেরণ এপ্রিল ২৪, ২০২৪

আপডেট : ১২:১৩:৪৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৪

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :

ঠাকুরগাও প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও রুহিয়া কাকলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বদরুল ইসলাম বিপ্লবের উপর সন্ত্রাসী হামলার মামলায় আদালত প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।বুধবার প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মন সহ ৪ আসামী সিনিয়র জুডিশিয়াল আমুলি আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন জানালে উভয় পক্ষের আইনজীবীদের শুনানী শেষে বিচারক রাজিব কুমার চৌ: প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মনের জামিন না মন্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।অপর ৩ আসামী সতীশ চন্দ্র বর্মন,বিপ্লব চন্দ্র বর্মন ও সত্য মোহনকে জামিনে মুক্তির আদেশ দেয়।
জানা গেছে,ঠাকুরগাঁও সদরের রুহিয়া মধুপুর কাকলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মন ওই বিদ্যালয়ে বিভিন্ন পদে লোক নিয়োগের জন্য বেশ কিছু লোকের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়। তিনি তার মনোনীত লোকের চাকুরির নিশ্চয়তা না দেখে নিয়োগ কার্যক্রম বিভিন্ন অজুহাতে পিছানোর চেষ্টা চালায়।
এদিকে গত ৬ ফেব্রুয়ারি নতুন নীতিমালা অনুযায়ী ওই বিদ্যালয়ে সহ: প্রধান শিক্ষক,অফিস সহায়ক ও আয়া পদে লোক নিয়োগের সিদ্ধান্ত হয়।সে অনুযায়ী পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়।এতে প্রধান শিক্ষক তার মনোনীত লোকদের চাকুরি দিতে না পারায় আশংকাংয় পড়ে।প্রধান শিক্ষক চাকুরি প্রত্যাশি সতিশ চন্দ্র বর্মন ,বিপ্লব চন্দ্র বর্মন লক্ষন ও সত্য গোপাল সভাপতি বেকায়দায় ফেলতে পরিকল্পনা আটে। সে অনুযায়ী গত ১২ ফেব্রুয়ারী সকাল ১১ টায় প্রধান শিক্ষক
সভাপতিকে বিদ্যালয়ে ডেকে আনলে অফিস কক্ষে সকলে মিলে সভাপতি সাংবাদিক বিপ্লবকে এলোপাথাড়ি মারপিট করে।এছাড়াও নিয়োগ কার্যক্রম সম্পন্ন করতে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেন আসামীরা।প্রত্যক্ষদর্শীরা তাকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও ২৫০ শয়্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করেন।তিনি সেখানে কয়েকদিন চিকিৎসার পর খানিকটা সুস্থ হয়ে প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মন সহ ৪ জনকে আসামী করে রুহিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ৩০ মার্চ আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।
বুধবার প্রধান শিক্ষক সুদেব চন্দ্র বর্মন সহ ৪ আসামী সিনিয়র জুডিশয়াল আমলি আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন জানালে বিচারক রাজিব কুমার চৌধিরী উভয় পক্ষের দীর্ঘ শুনানী শেষে প্রধান আসামী সুদেব চন্দ্র বর্মনের জামিনের আবেদন না মন্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।এবং আপরাপর ৩ আসামীকে জামিনে মুক্তি দান করে।বাদী পক্ষে মামলায় কৌশলী ছিলেন এড. সোহরাব প্রধান,আবু তোরাব মানিক, এড. ইমরান হোসেন চৌ. প্রমুখ।আর আসামী পক্ষে ছিলেন এড. মাসুদ রানা।