ঢাকা ০৩:১১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আটোয়ারিতে সরকারি রাস্তা থেকে শতাধিক গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

সাইদুজ্জামান রেজা,পঞ্চগড়ঃ

পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নের ত্রিশুলিয়া চুচুলি এলাকায় সরকারি রাস্তা থেকে ৯৭ টি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে, শ্রী শচীন শর্মা নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।তিনি ওই এলাকার নগেন্দ্র শর্মার ছেলে।
শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি)দুপুরে ও বৃহস্পতিবার দিনভর গাছগুলো কাটা হয়।
সরেজমিনে ওই এলাকায় গিয়ে দেখা যায়,রাস্তাটির পাকাকরনের কাজ চলমান রয়েছে। ২৫-৩০ টি ইউক্যালিপটাস গাছ কেটে রাস্তায় ফেলে রাখা হয়েছে।কিছু গাছ ট্রাক্টরে নিয়ে জুয়েল নামের এক কাঠ ব্যবসায়ী ঠাকুরগাঁও নামাযপাড়া বাজারের স,মিলে নিয়ে গেছে।বাকি আরও কয়েকটি গাছ আছে সেগুলোর কাটা চলমান ছিল। এর আগে বৃহস্পতিবার কিছু গাছ কেটে নেওয়া হয়েছে ওই রাস্তা থেকে।
জানা যায়,গত কয়েক বছর আগে রাস্তার ধারে গাছগুলো রোপন করা হয়।সম্প্রতি গাছ কাটার জন্য উপজেলায় আবেদন করলে ইউনিয়নের উপ-সহকারি ভুমি কর্মকর্তা ও সার্ভেয়ার রাস্তায় গাছ পড়েনি প্রতিবেদন দেন। তবে অনুমোদন দেয়ার আগেই গাছগুলো কেটে নেয়া হচ্ছে। অভিযোগ রয়েছে ইউনিয়ন ভুমি কর্মকর্তা ও ইউনিয়ন পরিষদের সাথে অর্থের সমঝোতায় গাছগুলো কাটা হয়।
যদিও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো.দেলোয়ার হোসেন অর্থের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, উপজেলায় গাছ কাটার অনুমতি চেয়েছিল,কিন্তু উপজেলা প্রশাসন অনুমতি দেয়ার আগেই গাছগুলো কেটেছে।কিছু গাছ জব্দ করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।
অভিযুক্ত শচীন শর্মার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাসেদুল হাসান জানান,অভিযোগ পেয়ে থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে। কেউ যদি এই ধরনের কাজ করে থাকে তবে তদন্ত সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঠাকুরগাঁওয়ে ভোটের মাঠের বীরযোদ্ধা অরুণাংশু দত্ত টিটো

আটোয়ারিতে সরকারি রাস্তা থেকে শতাধিক গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

আপডেট : ১০:২২:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সাইদুজ্জামান রেজা,পঞ্চগড়ঃ

পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নের ত্রিশুলিয়া চুচুলি এলাকায় সরকারি রাস্তা থেকে ৯৭ টি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে, শ্রী শচীন শর্মা নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।তিনি ওই এলাকার নগেন্দ্র শর্মার ছেলে।
শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি)দুপুরে ও বৃহস্পতিবার দিনভর গাছগুলো কাটা হয়।
সরেজমিনে ওই এলাকায় গিয়ে দেখা যায়,রাস্তাটির পাকাকরনের কাজ চলমান রয়েছে। ২৫-৩০ টি ইউক্যালিপটাস গাছ কেটে রাস্তায় ফেলে রাখা হয়েছে।কিছু গাছ ট্রাক্টরে নিয়ে জুয়েল নামের এক কাঠ ব্যবসায়ী ঠাকুরগাঁও নামাযপাড়া বাজারের স,মিলে নিয়ে গেছে।বাকি আরও কয়েকটি গাছ আছে সেগুলোর কাটা চলমান ছিল। এর আগে বৃহস্পতিবার কিছু গাছ কেটে নেওয়া হয়েছে ওই রাস্তা থেকে।
জানা যায়,গত কয়েক বছর আগে রাস্তার ধারে গাছগুলো রোপন করা হয়।সম্প্রতি গাছ কাটার জন্য উপজেলায় আবেদন করলে ইউনিয়নের উপ-সহকারি ভুমি কর্মকর্তা ও সার্ভেয়ার রাস্তায় গাছ পড়েনি প্রতিবেদন দেন। তবে অনুমোদন দেয়ার আগেই গাছগুলো কেটে নেয়া হচ্ছে। অভিযোগ রয়েছে ইউনিয়ন ভুমি কর্মকর্তা ও ইউনিয়ন পরিষদের সাথে অর্থের সমঝোতায় গাছগুলো কাটা হয়।
যদিও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো.দেলোয়ার হোসেন অর্থের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, উপজেলায় গাছ কাটার অনুমতি চেয়েছিল,কিন্তু উপজেলা প্রশাসন অনুমতি দেয়ার আগেই গাছগুলো কেটেছে।কিছু গাছ জব্দ করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।
অভিযুক্ত শচীন শর্মার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাসেদুল হাসান জানান,অভিযোগ পেয়ে থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে। কেউ যদি এই ধরনের কাজ করে থাকে তবে তদন্ত সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।