ঢাকাশনিবার , ২০ নভেম্বর ২০২১
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. এক্সক্লুসিভ
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. খেলা
  7. গণমাধ্যম
  8. জবস
  9. জাতীয়
  10. জেলার খবর
  11. টপ নিউজ
  12. ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
  13. তথ্যপ্রযুক্তি
  14. ধর্ম
  15. প্রবাস
আজকের সর্বশেষ সবখবর

জনপ্রিয়তায় এগিয়ে মহিলা মেম্বার প্রার্থী মোছাঃ জরিনা বেগম ।

শ্রীরবরদী উপজেলা প্রতিনিধি (শেরপুর):-
নভেম্বর ২০, ২০২১ ৬:২৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

শেরপুর জেলার শ্রীবরদী উপজেলার ৪নং তাতীহাটি ইউনিয়ন পরিষদের ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত আসনে মহিলা মেম্বার মোছাঃ জরিনা বেগম। আসন্ন ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে প্রতিদদ্ধী প্রার্থীদের মধ্যে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে রয়েছেন বলে অনুসন্ধানে উঠে এসেছে।
তিনি স্বপ্ন দেখেন আধুনিক ও সমৃদ্ধ একটি ওয়ার্ড গড়ার।মহিলা মেম্বার প্রার্থী মোছা জরিনা বেগমের সাথে কথা বলে জানা যায়, তিনি বলেন আমার স্বামী অত্র ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সাবেক ও বর্তমান সফল ইউপি সদস্য তিনি বারবার নির্বাচিত হয়ে জনসাধারণের কাজে অংশগ্রহণ করে যাচ্ছেন,উন্নয়নের চাকা সচল রাখতে যে সূচনা তিনি আগে মানুষের ভোটে নির্বাচিত হয়ে দেখেছিলেন তা সম্পন্ন করার জন্য নতুন করে আমি সংরক্ষিত মহিলা আসনে সদস্য পদপ্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করব। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে মেম্বার হিসেবে
তিনি নির্বাচিত হয়ে সাধারণ মানুষের অফুরন্ত ভালবাসা পেয়েছেন। সুখে দুঃখে অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন। কাজ করেছেন মানুষের কল্যাণে। নিজের ওয়ার্ডকে মনে করেছেন নিজের পরিবার। পরিবারের অসম্পূর্ণ চাহিদা পূরণের প্রত্যাশায় নতুন করে মানুষের সেবা করার সুযোগ পেতে চাই আমি।

বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে উনার স্বামীর বিগত সময়গুলোতে মানুষের কল্যাণে উন্নয়ন কাজের কথা। উওর ষাইটকাকড়া গ্রামের জামাল উদ্দিন, জানকিখিলা গ্রামের বারেক, শহীদ মেলেটারী বলেন, সরকারি অনুদানের বাহিরেও ব্যক্তিগত ভাবে তিনি আমাদের জন্য কাজ করেন। সুখ-দুঃখে আমাদের পাশে থেকেছেন। নতুন মেম্বার হিসেবে আমরা তাকেই চাই।

শালমারা গ্রামে কথা হয় জাকির হোসেন ও মজিবুর সরদারের সাথে। তারা বলেন, উনার স্বামী বয়ষ্ক ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, সরকারি অনুদান আমাদের খোঁজে খোঁজে দিয়েছেন। গরিব ও মেহনতি মানুষের সুখে দুঃখে সব সময়পাশে দাঁড়ান। তাকে আমরা সকলেই ভালবাসি। মহিলা মেম্বার হিসেবে জরিনা বেগমই যোগ্য।

রহিমা বেগম নামে আরেক বাসিন্দা বলেন, জরিনা আপা নারীদের জন্য কাজ করেন। বাল্য বিয়ে রোধ, সামাজিক অসঙ্গতি দূরীকরণ, শিশুদের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে সব সময়ই আমাদের সচেতন করেন। আমরা তার কাছে সাহায্য চেয়ে কখনো নিরাশ হইনি। ওনার দ্বারা আমাদের অনেক উপকার হয়েছে।

মেম্বার প্রার্থী জরিনা বেগম বলেন, আমি দিন-রাত ওয়ার্ডের মানুষের কল্যাণে কাজ করেছি। ওয়ার্ডের মানুষকেই আমি পরিবার মনে করি। তারা যদি আমাকে যোগ্য মনে করে তবে অবশ্যই আবার নির্বাচিত হয়ে তাদের পাশে থাকব। আমার দেওয়া প্রতিটি প্রতিশ্রতি এক এক করে বাস্তবায়ন করব।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।